+

যশোরের জনপ্রিয় পুলিশ সুপার আশরাফ হোসেনের হঠাৎ বদলী

সরেজমিনবার্তা | নিউজ টি ১০ দিন ৩ ঘন্টা ৪৩ সেকেন্ড আগে আপলোড হয়েছে। 945
...

প্রতিনিধি জাহাঙ্গীর 

জনবান্ধব পুলিশ সুপারকে হঠাৎ  বিদায় জানাতে পারলো যশোর বাসী। তিনি হলেন যশোরের পুলিশ সুপার (সদ্য ঢাকা রেঞ্জ ডিএমপিতে উপ কমিশনার হিসেবে বদলি হওয়া আশরাফ হোসেন বিপিএম বার। 

তিনি যশোর পুলিশ সুপার জনাব মোহাম্মদ  আশরাফ হোসেন   ২০১৯ সালে রংপুর রেঞ্জ থেকে বদলী হয়ে যশোর জেলা পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদান করেন। মাত্র এক বছর যেতে না যেতেই ঢাকা রেঞ্জে বদলীর আদেশ হয় ।

যশোরে খুব অল্প সময়ই পুলিশ সুপারের দায়িত্ব পালন করেন। এই সল্প সময়ে তার কাজের মাধ্যমে  মানুষের মন জয় করতে সক্ষম হয়েছেন। একজন জনবান্ধব, বিনয়ী ও কর্মদক্ষ পুলিশ সুপার হিসেবে সর্বমহলে পরিচিত পেয়েছিলেন। তিনি সীমান্তবর্তী এ জেলায় পুলিশ সুপার হিসেবে দায়িত্ব পালন করার বিরল সুযোগ পেয়ে। জেলার পুলিশ সুপার পদে দায়িত্ব পালনকালীন তিনি তার কাজের সাফল্য অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

আশরাফ হোসেন, খুব অল্পদিনেই মাদক বিরোধী ভূমিকা ও জনবান্ধব মূলক কর্মকা- করায় সর্বমহলে প্রশংসিত হয়েছে। বিশেষ করে চলতি করোনা ভাইরাস সংক্রমণের শুরুতে সাধারণ মানুষের কষ্ট লাঘবে ঘরে ঘরে খাদ্য নগদ অর্থ বস্ত্র পৌঁছে দিয়েছিলেন। যশোর পুলিশের পক্ষ থেকে, হট লাইন চালু করে করোনা কালিন যে সকল পরিবার খাদ্য সহায়তা সঠিকভাবে পাননি যোগাযোগ  করলে বাড়িতে খাদ্য পৌঁছে দিতেন নিজহাতে  এতে করে মানুষের আস্থাও বেড়েছে আরো অনেক।

সাধারণ মানুষের মন জয় করতে সক্ষম হন। এছাড়া মাদক, বাল্যবিবাহ, ছেলে ধরা গুজব, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ মোকাবেলায় কঠোর অবস্থান গ্রহণ করেছিলেন। তিনি মাদকের বিরুদ্ধে জিরো ট্রলারেন্স ঘোষণা করে ব্যাপক সুনাম কুড়িয়েছেন। তার নেতৃত্বে মাদকের বিরুদ্ধে ব্যাপক অভিযানে সুফল হিসেবে যশোর  সিমান্তের থানাসহ বিভিন্ন থানায় একটি বিশাল সংখ্যক মাদক সেবী ও ব্যবসায়ী স্বেচ্ছায় আত্মগোপন করে।

সর্বশেষ যশোর কমিউনিটি পুলিশ ও যশোর  বেনাপোল পৌরসভা সহ সকলের নিরাপত্তার স্বার্থে যশোর জেলাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবির পেক্ষিতে জেলার হাটবাজার গুলো ও শহরকে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনতে সক্ষম হয়েছেন।

যা ছিলো তার কাজের আরেকটি বড় সাফল্য। ডিসটিক পুলিশ সুপার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম (ফেসবুক) সাধারণ মানুষের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। মানুষের যে কোন অভিযোগ ফেসবুক কিংবা ম্যাসেঞ্জারে জানার সাথে সাথে তিনি ব্যবস্থা গ্রহণ করতেন ।

বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা মাদকসহ সকল ধরনের অপরাধ নির্মূলে কঠোর হুশিয়ারী উচ্চারণ করে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন কোন মাদকবিক্রেতা বা অপরাধীকে ছাড় দেওয়া হবে না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মাদকমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় বাস্তবায়নে আন্তরিক হয়ে কাজ করছেন বাংলাদেশ পুলিশের মহাপুলিশ পরিদর্শক ড. বেনজির আহম্মেদ  বিপিএম,পিপিএম বার। সেই আলোকে যশোর জেলা পুলিশ সুপার আশরাফ হোসেন, (বিপিএম বার) মাদকের সাথে কোন আপোষ নাই মর্মে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়ে কাজ করেছিলেন এবং জিরো ট্রলারেন্স ঘোঘণা করেছেন ।

যশোরকে সম্পূর্ণ মাদকমুক্ত জেলা হিসেবে গড়ে তোলার জন্য তিনি নানা ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। জেলার প্রতিটি উপজেলার থানাগুলোতে কঠোর নির্দেশনা প্রদান করেছেন। তিনি সাহসিকতা ও সেবামূলক কাজের জন্য বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম) পেয়েছেন পুলিশ সুপার (এসপি) আশরাফ হোসেন,  বিপিএম বার।

জানা গেছে গত ২০১৮ সালে নিজেদের পেশায় অসীম সাহসিকতা ও বীরত্বমূলক কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ২০১৯ সালে পুলিশের ৪০জন সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম), ৬২ জনকে রাষ্ট্রপতির পুলিশ পদক দেয়া হয়েছে। পুলিশ সুপার আশরাফ হোসেন এর পূর্বে রাষ্ট্রপতির পুলিশ পদক  পেয়েছেন। 

জনাব আশরাফ হোসেন, হঠাৎ যশোর থেকে ঢাকা ডিএমপিতে বদলি হওয়ায় জেলার পাশাপাশি উপজেলা গুলোর সাধারণ মানুষের কষ্ট রাতারাতি জনবান্ধব একজন চৌকস অফিসার বদলী নাকি অন্য কিছু আছে সেই পশ্নের উত্তর খুঁজে পাওয়ার চেষ্টা করছেন এ জেলার বুদ্ধিজিবি সাধারণ মানুষ সহ সচেতন মহল। এ জেলার সাধারণ মানুষের আশা সাবেক এসপি আশরাফ হোসেন যে সেবা দিয়েছে।  

নবাগত পুলিশ সুপার মহোদয় সেবার কার্যক্রম গুলো অব্যাহত  রাখবেন  বলে  আশা  জনসাধারণের । 

...
MD. ZAHANGIR ALAM(SJB:E014)
Mobile : 01714590443

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোহাম্মদ বেলাল হোছাইন ভূঁইয়া
01731 80 80 79
01798 62 56 66

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক
আল মামুন
01868974512

প্রধান কার্যালয় : লেভেল# ৮বি, ফরচুন শপিং মল, মৌচাক, মালিবাগ, ঢাকা - ১২১৯ | ই-মেইল: news.sorejomin@gmail.com , thana.sorejomin@gmail.com

...

©copyright 2013 All Rights Reserved By সরেজমিনবার্তা

Family LAB Hospital
সর্বশেষ সংবাদ