+

পাঁচ সেকেন্ডের অক্সিজেনহীনতা হতে পারে এই পৃথিবীর ধ্বংসের কারণ

সরেজমিনবার্তা | নিউজ টি ১ দিন ২১ ঘন্টা ২১ সেকেন্ড আগে আপলোড হয়েছে। 1130
...

 

অনেকেরই ধারণা, শুধুমাত্র প্রাণীর বেঁচে থাকার জন্যই অক্সিজেনের প্রয়োজন। এটা ভুল! পৃথিবীর সবকিছুর সঙ্গেই জড়িয়ে আছে অক্সিজেন। এমনকি আমরা যে মাটির উপর দাঁড়িয়ে আছি, সেটিকেও ধরে রাখে প্রায় ৪৫ শতাংশ অক্সিজেন। অক্সিজেনের পরিমাণ কমে গেলে মাটি ধসতে শুরু করবে। আর মাটি ধসে গেলে আমাদের কারো পক্ষেই টিকে থাকা সম্ভব হবে না।
পানি তৈরি হয় দু ভাগ হাইড্রোজেন এবং একভাগ অক্সিজেন মিলে। এখন যদি হঠাৎ করে পানির মধ্যে থাকা অক্সিজেন নাই হয়ে যায় তবে পড়ে থাকবে শুধুই হাইড্রোজেন। হাইড্রোজেন এককভাবে কেবল গ্যাস এবং যা সবচেয়ে হালকা। হাইড্রোজেন যদি অক্সিজেন থেকে আলাদা হয় তবে মুহূর্তের মধ্যে তা আকাশের দিকে যেতে থাকবে। এমনকি পৃথিবী ছেড়ে মহাকাশে চলে যাবে। ফলে পৃথিবীতে যত পানি আছে সব বাষ্পীভূত হতে থাকবে।
আমরা ইট বালি এবং সিমেন্টকে একত্র করে দালান তৈরি করি। কিন্তু এই ইট, বালি, কংক্রিট—এদের জমিয়ে রাখে কে বলতে পারেন? এদের জমিয়ে রাখার কাজটা করে অক্সিজেন। এমনকি একটা কংক্রিট ভাঙলে যে ছোট কণা হয়ে যায়, সেইসব কণাকেও একত্র করে রাখে অক্সিজেন। যেই সময় বায়ুমণ্ডলে অক্সিজেন নাই হয়ে যাবে সাথে সাথেই এইসব কংক্রিটের দালান পাউডারের মতো গুঁড়া হয়ে যেতে শুরু করবে।
গাছের সাথে অক্সিজেনের একটা সম্পর্ক আছে বলেই আমরা জানি। গাছ আমাদের অক্সিজেন দেয় এবং আমাদের থেকে কার্বন টেনে নেয়। কিন্তু আপনি জানেন কি, যদি শুধু অক্সিজেন না থাকে তবে এই পৃথিবীতে যত গাছ আছে সব শুকিয়ে যাবে। কেননা গাছকেও বাঁচিয়ে রাখে অক্সিজেন। আর নিমিষের অক্সিজেনহীনতা হতে পারে সেই গাছের জন্য ধ্বংসের কারণ। সবচেয়ে বেশি পরিমাণ অক্সিজেন উৎপন্ন করে গাছ ফটোসিন্থেসিস এর মাধ্যমে। তাই গাছকে রক্ষা করা এবং গাছ লাগানো কতটা জরুরি তা তো বুঝতেই পারছেন। অক্সিজেন না থাকলে যত ধাতু আছে সব একসঙ্গে জুড়ে যাবে। কেননা প্রতিটি ধাতুর ওপর অক্সিজেনের স্তর থাকে এবং সেটি না থাকলে পরস্পরের সাথে লেগে থাকা ধাতু নিজে থেকেই জুড়ে যাবে।
ধরুন, হুট করেই পাঁচ মিনিটের জন্য পৃথিবী থেকে অক্সিজেন উধাও। কী হবে তখন? আপনার মনে হতে পারে পাঁচ সেকেন্ডে কী-ই-বা আর হবে। কারণ বেশির ভাগ মানুষই কমপক্ষে ৩০ সেকেন্ড শ্বাস-প্রশ্বাস না নিয়ে থাকতে পারে। অথচ আশ্চর্য হলেও সত্য, পাঁচ সেকেন্ডের অক্সিজেনহীন অবস্থার কারণেই ভেঙে পড়বে কংক্রিটের স্থাপনা, উল্কার মতোই খসে পড়বে আকাশে উড়তে থাকা প্লেন, ঘটে যাবে পরিবেশের বিশাল বিপর্যয়। চারিদিক পরিণত হবে ধ্বংসস্তূপে।
আমাদের শরীরের ৭০% পানি। আগেই বলেছি পানি তৈরি হয় অক্সিজেন এবং হাইড্রোজেনের মিশ্রণে। এরপর হঠাৎ অক্সিজেন উধাও হয়ে গেলে আমাদের শরীর শুকিয়ে যাবে। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই আমাদের শরীর হয়ে যাবে মমির মতো। আর এটা শুধু মাত্র মানুষের সাথে ঘটবে এমন নয়, বরং পৃথিবীতে যত প্রাণী আছে সবার ক্ষেত্রেই এমনটাই ঘটবে।
পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলের ২১ ভাগই অক্সিজেন, ৭৮ ভাগ নাইট্রোজেন। যদিও দেখা যাচ্ছে বায়ুমণ্ডলে অক্সিজেনের চেয়ে বেশি অংশজুড়ে রয়েছে নাইট্রোজেন। তবুও সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে অক্সিজেন। এটা অনেকটা একটা ভবনের ফাউন্ডেশনের মতো। অক্সিজেন ছাড়া প্রাণী, উদ্ভিদ, জল এমনকি মানুষও নিজস্ব অবস্থানে ঠিকমত থাকবে না। 
আপনি হয়তো ভাবছেন পাঁচ সেকেন্ড পর যখন অক্সিজেন ফিরে আসবে তখন হয়তো সবকিছু স্বাভাবিক হয়ে যাবে। কিন্তু বিষয়টি মোটেও এমন নয়। পাঁচ সেকেন্ড পর যদি হঠাৎ অক্সিজেন ফিরেও আসে তাহলে পুরো পৃথিবী ঠান্ডা হয়ে যাবে। সাথে সাথে ঘটবে ভয়ানক বিস্ফোরণ। কারণ অক্সিজেনের সংস্পর্শে আসা মাত্র সবকিছু অক্সিডাইসড হতে শুরু করবে। ঘটতে থাকবে ভয়ঙ্কর সব ঘটনা। মাত্র পাঁচ সেকেন্ডের অক্সিজেনহীনতা হতে পারে এই পৃথিবীর ধ্বংসের কারণ।

...
MD. Shajalal Rana(SJB:E078)
Mobile : 01881715240

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোহাম্মদ বেলাল হোছাইন ভূঁইয়া
01731 80 80 79
01798 62 56 66

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক
আল মামুন
01868974512

প্রধান কার্যালয় : লেভেল# ৮বি, ফরচুন শপিং মল, মৌচাক, মালিবাগ, ঢাকা - ১২১৯ | ই-মেইল: news.sorejomin@gmail.com , thana.sorejomin@gmail.com

...

©copyright 2013 All Rights Reserved By সরেজমিনবার্তা

Family LAB Hospital
সর্বশেষ সংবাদ