+

লামায় ৯ বছর ধরে পুলিশের নজর এড়িয়ে চলছে খুনের অভিযুক্ত একজন 

সরেজমিনবার্তা | নিউজ টি ১২ দিন ০ ঘন্টা ৪১ সেকেন্ড আগে আপলোড হয়েছে। 755
...

লামায় ইউপি মেম্বার হত্যার আসামী ৯ বছরেও পুলিশের হাতে ধরা পড়েনি! প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে এলকায়। ২০১৩ সালে ২৩ আগষ্ট ফাইতং ইউনিয়নের চিউরতলী ১ নং ওয়ার্ড মেম্বার আবদুল মালেক নিখোঁজ হয়। 
ওই বছর ৫ সেপ্টেম্বর পুলিশ-জনতার তৎপরতায় পাশ্ববর্তী আজিজনগর ইউপির খিয়াংঝিরিস্থ মানিকের গোদার পাড় থেকে মাটিচাপা অবস্থায় মালেক মেম্বারের অর্ধগলিত লাশের সন্ধান মিলে।
৭ সেপ্টেম্বর ইউপি মেম্বার আব্দুল মালেককে হত্যার দায়ে মো. অলি গাজী (২৬) ও তার স্ত্রী জোসনা বেগমকে পলায়নরতাবস্থায় সাতক্ষীরা থেকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ।
পুলিশি তদন্তে ওই খুনের মামলায় পর্যায়ক্রমে আরো যাঁদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছিল, তাদের মধ্যে হারবাং  ইউপি চেয়ারম্যানের ছেলে মানিক, ফাইতং এর বাসিন্দা  নিহত মালেক মেম্বারের নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বি মেহেরাজ(বর্তমান মেম্বার), স্থানীয় নুরুল ইসলাম। 
মালেক মেম্বার হত্যায় গ্রেফতারকৃত এসব আসামী বছর, মাস জেল খেটে জামিনে মুক্ত হন। তৎকালীন ওই  চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলাটি কয়েক ঘাট পেরিয়ে সিআইডির উপর ন্যস্ত হয়েছিল।
সিআইডির অনুসন্ধানে ওই খুনের পেছনে আরো যে ক'জনের নাম উঠে আসে, তাদের মধ্যে অন্যতম আসামী হিসেবে নিহত মালেক মেম্বারে প্রতিবেশি রবিউল ইসলাম, পিতা পাটোয়ারী মাঝিকে উল্লেখ করা হয় বলে জানাযায়। কিন্তু মামলার সব আসামী গ্রেফতার হলেও বিগত ৯ বছরেও পুলিশের ধরাছোঁয়া এড়াতে সক্ষম হন রবিউল ইসলাম(!)।
এদিকে নিহতের পরিবারসহ স্থানীয়রা জানান, জামিন থাকা অন্যান্য আসামী ও পলাতক আসামী রবিউল ইসলাম হুমকী দিচ্ছে নিহতের পরিবার-আত্মীয, শুভাকাঙ্খিদেরকে। একজন পলাতক খুনের অভিযুক্ত ৯বছর কিভাবে পুলিশের নজর এডিয়ে এলাকায় দাপডের সাথে ঘুরে বেড়ায়? এমন প্রশ্নের উত্তর খুঁজে পাচ্ছেন না স্থানীয়রা।
প্রসঙ্গ: গত ২৩ আগস্ট২০১৩ আজিজনগরের সাবেক ইউপি মেম্বার মো. আব্দুল মালেককে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে মো. অলি ও তার স্ত্রী জোসনা বেগম। পরে তারা এলাকার একটি বাগানে লাশ গুম করে রেখে স্বপরিবারে পালিয়ে সাতক্ষীরায় আশ্রয় নেয়।
এ ঘটনায় ৫ সেপ্টেম্বর২০১৩  নিহতের ছেলে লামা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। অলিকে এবং অজ্ঞাত অপর ৩/৪ জনকে আসামি করে ওই মামলাটি দায়ের করা হয়।
উল্লেখ্য যে, গত ২৩ আগস্ট ১৩ বিকালে ঘাতক অলির সাথে সাবেক ইউপি মেম্বার মো. আব্দুল মালেক বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসে নি।  ৫ সেপ্টেম্বর রাতে আজিজনগরের পাশবর্তী এলাকা থেকে তার গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়।
ঘাতক অলি রাঙ্গামাটি শফিপুর গ্রামের ওহাব গাজীর ছেলে। সে ঘটনার দেড় বছর আগে ফাইতং ইউনিয়নে বিয়ে করে সেখানে বসবাস করছে।
জানাযায়, জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে পরিকল্পিতভাবে আব্দুল মালেককে হত্যা করা হয়েছিল।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে, লামা থানার ওসি তদন্ত জানান, ওয়ারেন্ট থাকলে আসামীকে গ্রেফতার করা হবে। 
পুলিশের দায়িত্বশীল তৎপরতা প্রত্যাশা করেন স্থানীয়রা।

...
MD. Kamruzzaman(SJB:E528)
Mobile : 01859679080

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোহাম্মদ বেলাল হোছাইন ভূঁইয়া
01731 80 80 79
01798 62 56 66

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক
আল মামুন
01868974512

প্রধান কার্যালয় : লেভেল# ৮বি, ফরচুন শপিং মল, মৌচাক, মালিবাগ, ঢাকা - ১২১৯ | ই-মেইল: news.sorejomin@gmail.com , thana.sorejomin@gmail.com

...

©copyright 2013 All Rights Reserved By সরেজমিনবার্তা

Family LAB Hospital
সর্বশেষ সংবাদ