গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার অনুমোদিত অনলাইন নিবন্ধন নাম্বার ৬৮

জার্সি-পতাকায় ব্যবসা রঙিন

সরেজমিনবার্তা | নিউজ টি ১ দিন ১ ঘন্টা ১১ সেকেন্ড আগে আপলোড হয়েছে। 140
...

বাংলাদেশ দল বিশ্বকাপ ফুটবলে না গেলেও খেলা নিয়ে এই দেশের মানুষের আবেগের শেষ নেই। চার বছর পর বিশ্বকাপ শুরু হলেই পুরো দেশ ছেয়ে যায় পছন্দের দলের পতাকায়। শিশু-কিশোর আর তরুণদের গায়ে ওঠে জার্সি। বিশেষ করে ব্রাজিল-আর্জেন্টাইন সমর্থকদের উন্মাদনা যেন একটু বেশিই বলা যায়।

সে সুযোগে দেশে পতাকা জার্সির ব্যবসা তুঙ্গে ওঠে। এবারের বিশ্বকাপে শুধু স্টেডিয়াম মার্কেটেই প্রায় তিন হাজার কোটি টাকার ব্যবসা হবে বলে জানান বিক্রেতারা।

তাঁরা জানান, আর্জেন্টিনা ব্রাজিলের পাশাপাশি জার্মানি, স্পেন, পর্তুগাল, সৌদি আরব, জাপান কাতারের পতাকা-জার্সির ব্যবসা বেশ ভালো। অনেকেই আবার প্রিয় দলের পাশাপাশি দেশের পতাকাও কিনে নিচ্ছে। তবে ব্যবসায়ীরা বলছেন, বিক্রি ভালো হলেও লাভ কম। কারণ একদিকে গ্যাসসংকটে দেশে উৎপাদন খরচ বেশি, অন্যদিকে পণ্য আমদানির ঋণপত্রও (এলসি) খোলা যাচ্ছে না। ফলে তাঁরা এখন জার্সির চাহিদা মেটাচ্ছেন দেশে উৎপাদিত পণ্যে।

গত শনিবার রাজধানীর গুলিস্তানে স্টেডিয়াম মার্কেটসহ বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ের বেশ করেকটি মার্কেট ঘুরে দেখা যায় ফুটবল উন্মাদনার চিত্র। শুধু মার্কেট নয়, এর পাশাপাশি ফুটপাতেও ব্যবসায়ীরা বসেছেন ফুটবল বিশ্বকাপের পসরা নিয়ে। কী নেই সেখানে। জার্সি, পতাকার পাশাপাশি আছে বিচ ব্যান। মানভেদে বড়দের প্রতিটি জার্সি বিক্রি হচ্ছে ৪০০ টাকা থেকে শুরু করে এক হাজার ২০০ টাকা। আর বাচ্চাদের জার্সি বিক্রি হচ্ছে ৩০০ টাকায়। দলের পার্থক্য থাকলেও জার্সির মান অনুযায়ী দাম একই। তবে বেশি বিক্রি হচ্ছে ব্রাজিল আর্জেন্টিনার জার্সি।

পতাকার রয়েছে বেশ কয়েকটি প্রকারভেদ। ১০ ফুটের পতাকা বিক্রি হচ্ছে ৪০০ টাকায়। পাঁচ ফুটের ১২০ টাকা আর তিন ফুটের পতাকা বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকায়। বাজারে এসেছে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার মাফলারও। প্রতিটি মাফলার বিক্রি হচ্ছে ১২০ থেকে ১৫০ টাকায়। হাতের রিচ ব্যানগুলো বিক্রি হচ্ছে ১০ টাকায়।

জানতে চাইলে বাংলাদেশ স্পোর্টস গুডস মার্চেন্টস ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড ইমপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মো. শামীম বলেন, ডলারের সংকটের কারণে আমরা বিদেশ থেকে পণ্য আনতে পারছি না, বিশেষ করে জার্সিগুলো। এলসি খুলতেও পারছি না। ছাড়া গত এক মাসে আমাদের সব পণ্যের দাম বেড়েছে ৫০ শতাংশ। বিপুল চাহিদা মেটাতে হচ্ছে দেশীয় পণ্যে। তবে বিক্রি ভালো হলেও লাভ কম হচ্ছে। এর অন্যতম প্রধান কারণ হচ্ছে উৎপাদন খরচ বেশি। তিনি আরো বলেন, এবার আমরা আশা করছি এই মার্কেটে তিন হাজার কোটি টাকার ব্যবসা হবে।

গুলিস্তান শপিং কমপ্লেক্সের জার্সি পতাকা বিক্রেতা জয় স্পোর্টসের মালিক আব্দুল মতিন কালের কণ্ঠকে বলেন, বাজারে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি বিক্রিতে খুব বেশি প্রভাব ফেলেনি। জার্সি পতাকা বিক্রি হচ্ছে। সবার মধ্যে উৎসব বিরাজ করছে। অনেকেই পরিবারসহ জার্সি কিনতে আসছে। খেলা নিয়ে মানুষের উদ্দীপনা অনেক বেশি। তিনি আরো বলেন, তবে বেশি বিক্রি হচ্ছে ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনার পতাকা জার্সি।

গুলিস্তান বঙ্গবন্ধু এভিনিউ এলাকার অন্তত ১০টি দোকান ফুটপাতের বেশ কয়েকজন বিক্রেতা জানান, দেশীয় বাজারে আর্জেন্টিনার জার্সি পতাকার চাহিদা তুলনামূলক বেশি। তবে তাঁরা বলছেন আর্জেন্টিনার হারের পর বেড়েছে সৌদি আরবের পতাকা বিক্রি।

 

...
News Admin
01731808079

সম্পাদক ও প্রকাশক
মোহাম্মদ বেলাল হোছাইন ভূঁইয়া
01731 80 80 79
01798 62 56 66

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
আল মামুন

প্রধান কার্যালয় : লেভেল# ৮বি, ফরচুন শপিং মল, মৌচাক, মালিবাগ, ঢাকা - ১২১৯ | ই-মেইল: news.sorejomin@gmail.com

...

©copyright 2013 All Rights Reserved By সরেজমিনবার্তা

Family LAB Hospital
সর্বশেষ সংবাদ